খাগড়াছড়ি কারাগারে পুলক চাকমার মৃত্যু রহস্যজনক

প্রকাশিত: ১১:৫০ অপরাহ্ণ , জুন ৪, ২০২০

খাগড়াছড়ি জেলা কারাগারে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর অন্যতম সংগঠক পুলক চাকমার আকস্মিক মৃত্যুর ঘটনাকে রহস্যজনক বলছে ইউপিডিএফ।
আজ বৃহস্পতিবার (৪ জুন) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে সংগঠনটির খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের সংগঠক অংগ্য মারমা এই দাবি করেন। তিনি পুলক চাকমার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানের জন্য একটি নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন করার দাবি জানান।
বিবৃতিতে বলা হয়, সুঠাম ও বলিষ্ঠ দেহের অধিকারী পুলক চাকমার অকাল মৃত্যু কারা কর্তৃপক্ষের অবহেলাজনিত কারণে হয়ে থাকলে দায়ীদের বিরুদ্ধে যথাযথ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
২০১৮ সালের ৩০ মে তাকে জেলার লক্ষ্মীছড়ি থেকে গ্রেফতার করে তার ওপর বর্বর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানো হয়েছে বলে বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়। এছাড়া তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন পাওয়ার পরও ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তাকে কারাগারে আটকে রাখা হয় বলে অভিযোগ করা হয় বিবৃতিতে।
প্রসঙ্গত, পুলক চাকমা ইউপিডিএফে যোগদানের আগে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সাথেও যুক্ত ছিলেন।
তিনি পিসিপি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি নির্বাচিত হন। পার্বত্য চট্টগ্রামে ভূমি বেদখল ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে তিনি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও সাহসী ভূমিকা পালন করেছিলেন।
অংগ্য মারমা অবিলম্বে কারাগারে আটক সকল ইউপিডিএফ নেতা, কর্মী ও সমর্থকদের মুক্তি দেওয়ারও দাবি জানান।
মৃত পুলক চাকমা রাঙামাটির নানিয়ারচরে নিহত শক্তিমান চাকমা হত্যাসহ একাধিক হত্যা মামলার আসামী।