সহসাই মাঠে ফিরছে না বাংলাদেশের ক্রিকেট!

প্রকাশিত: ৮:১৫ অপরাহ্ণ , মে ৩১, ২০২০

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের কারণে দেশে সব ধরণের ক্রিকেট বন্ধ রয়েছে দুইমাসেরও বেশি সময় ধরে। তবে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটির মেয়াদ না বাড়ায় সহসাই মাঠে ফিরছে না বাংলাদেশের ক্রিকেট! সরকার লকডাউন খুলে দিলেও আপাতত ক্রিকেটারদের থাকতে হচ্ছে মাঠের বাইরেই। কারণ কোনো ঝুঁকি নিতে চাইছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। দিন যতই গড়িয়ে যাচ্ছে দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমণ এবং মৃত্যুর সংখ্যা ততই বাড়ছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, গতকাল পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪০ জন। এদিন এই ভাইরাসে নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ২৫৪৫ জন। ফলে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৭ হাজার ১৫৩। আর মারা গেছেন ৬৫০ জন। তাই এই পরিস্থিতিতে মাঠে ক্রিকেট ফিরিয়ে আনতে নারাজ বিসিবি)

১৭ মার্চ থেকে গৃহবন্দি তামিম-মুশফিকরা। সরকার অঘোষিত লকডাউন তুলে নেয়ায় ধারণা করা হচ্ছিল ক্রিকেটারদের দীর্ঘদিন পর হয়তো মাঠে ফিরছেন। কিন্তু বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজনের ভাষ্য অনুযায়ী ‘সেটা এখনই সম্ভব নয়’।

খেলোয়াড়দের জন্য শতভাগ সুরক্ষা নিশ্চিত না করে মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর ঝুঁকি বিসিবি নিতে চায় না বলেই জানিয়েছেন সুজন। তিনি বলেন, ‘মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর ভাবনাটা আমাদের আছে। কিন্তু আমরা এ অবস্থায় ঝুঁকি নিতে চাই না। প্রথমে আমরা অফিস প্রস্তুত করব, জীবানুনাশ করতে যা যা করা প্রয়োজন তা করবো, খেলোয়াড়দের অনুশীলন সুবিধা শতভাগ নিশ্চিত করতে যা যা করার সেগুলো করবো আগে। তারপর অবস্থা বুঝে ক্রিকেট মাঠে ফেরানো হবে।’

সুজন আরো বলেন, ‘আমাদের আইসিসির এফটিপিতে অনেক ম্যাচ রয়েছে। ঘরোয়া ক্রিকেট মৌসুমের অর্ধেক প্রায় শেষ। আমরা সুরক্ষা ব্যবস্থা পুরোপুরি নিশ্চিত করে আইসিসির প্রটোকল মেনে অনুশীলন করতে পারলে অবশ্যই ম্যাচ খেলার ব্যবস্থা করবো। এখানে তাড়াহুড়ো করার কোনো সুযোগ নেই। কোন দুর্ঘটনা ঘটলে দায় তো ক্রিকেট বোর্ডের ঘাড়েই চাপবে।’