নিউজ রুম এডিটর, নিউজ৭১অনলাইন

ময়মনসিংহে প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণ

মাসুদ রানা, ময়মমসিংহ ২৩ সেপ্টেম্বর

ময়মনসিংহ সদর উপজেলার কান্দাপাড়া এলাকায় বুন্ধিপ্রতিবন্ধী এক যুবতীকে (২০) হত্যার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তবে ধর্ষণের পর থেকেই ওই যুবতী প্রায় ৪ মাসের অন্তঃসত্তা।

শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর ) বিকালে সদর উপজেলার চরনিলক্ষীয়া ইউনিয়নের কান্দাপাড়া এলাকায় গেলে এ ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া যায়।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার কান্দপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের কন্যা (২০) একজন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী। সে স্থানীয় একটি কার্পেট ফ্যাক্টরীতে শ্রমিকের কাজ করতেন। নুরুল ইসলাম নিজেও একজন দিনমজুর বলে জানা গেছে। কাজ করলে নুরুলের সংসারে খাবার জুটে না হয় ছেলে মেয়ে নিয়ে উপস থাকতে হয় এই পরিবারটির।

আরও জানা যায়, গত রমজান মাসের প্রথম দিকে নুরুল ইসলামের কন্যাকে (২০) একই গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে আঃ কাদির (৩০) নামে এক বখাটে হত্যার ভয় দেখিয়ে জোর করে ধর্ষণ করেছে। ধর্ষণের পর ওই যুবতীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়েছে কাদির। সে যেন ধর্ষণের কথা কাউকে না বলে। এখন ওই যুবতী প্রায় ৪ মাসের অন্তঃসত্তা বলে চিকিৎসক জানিয়েছেন।

এদিকে ওই যুবতীর সাথে প্রতিবেদকের কথা হলে, তিনি জানান, রোজার প্রথম দিকে একদিন রাত ৯ টার দিকে কাদির আঙ্গর ঘরে ডুকে। ও শুমবালা আম্মা আরেক বাড়িতে নামাজ পড়বার গেছিন। তহনি আমার শরীরে ধইরা কয় আমার সাথে বাইরে আয়। পরে জোর কইরা হেই আমারে ঘরের পাছে লইয়া গেছে। পরে আমারে মাইরাইলবো কইয়া কাপড় খুলছে। ও শুমবালাই কাদির আমার ইজ্জত নিছে।

সে আরও জানান, ইজ্জত নেওয়ার পরে আমারে কয়ছে, হেই আমারে বিয়া করবো। কেউরে যদি কয়ছি, তাইলে আমারে হেই মাইরালবো। এইল্লেগা কেউরে কয়ছি না।

এরকম বিয়ার কথা কইয়া ৫ থেকা ৭ দিন কাদির আমার ইজ্জন নিছে।
অহন আমার পেটে কাদিরের বাচ্চা। আমি অহন কয় যাইয়াম? আমারে কেডা বিয়া করবো? এই বাচ্চার আব্বা ওইবো কেডা? এ কথা বলেই যুবতী কান্নায় ভেঙে পরেন।

অন্যদিকে যুবতীর মা রেনু বেগম অভিযোগ করে বলেন, এই ঘটনার পর থেকে মেয়ে ঠিক মত খায়না। পরে ডাক্তার খানায় নিয়ে পরীক্ষা করে দেখি মেয়ের পেটে বাচ্চা। এই খবর এলাকায় জানা জানি হলে গ্রামের মাতাব্বররা ধরবার সালিশ করছে।

সালিশে বিয়ের কথা সাব্বস্ত হলেও মাতাব্বরদের কাছ থেকে দুইদিন সময় নেয় ছেলের লোকজন। একই দিন রাতেই ছেলে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরে আর গ্রামে তাকে খুজে পাওয়া যায়নি। শুনেছি সে নাকি এখন ঢাকা চলে গেছে।

এখন আমার মেয়েকে কেডা গ্রহন করবো। আমিতো গরীব মানুষ। টেহা পয়সা নাই। আমরা কি সঠিক বিচার পায়তাম না? এই মেয়েটা লইয়া কই যাইয়াম বাবা? আপনারা একটা কিছু কইরা দেন। যাতে বিচার হয়। না হয় মরা ছাড়া আর কোন উপায় নাই বলেই কান্নায় ভেঙে পরেন মা রেনু বেগম।

এ বিষয়ে কোতুয়ালি মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম জানান, এমন ধর্ষণের ঘটনার খবর আমার কাছে আসেনি। আর কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। পুলিশ পাঠিয়ে খবর নিব। তবে পরিবারটি যদি কোন অভিযোগ দেয়, তাহলে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করবো।

23.09.2017 | 06:12 PM | সর্বমোট ৯৪ বার পঠিত

ময়মনসিংহে প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণ" data-width="100%" data-numposts="5" data-colorscheme="light">

জাতীয়

রোহিঙ্গা ইস্যুতে শেখ হাসিনাকে জাতিসংঘ মহাসচিবের ধন্যবাদ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। এ সময় রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপে অকুণ্ঠ...... বিস্তারিত

22.10.2017 | 01:33 AM




রাজধানী

টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন রাজধানী, দুর্ভোগ চরমে

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে গতকাল শুক্রবার থেকে আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত রাজধানীতে টানা বৃষ্টি ঝরছে। আর এই বৃষ্টি আজো দিনের অধিকাংশ সময়...... বিস্তারিত

21.10.2017 | 10:48 AM

চট্টগ্রাম

ফেইসবুকে নিউজ ৭১ অনলাইন

ধর্ম

ইসলাম আত্মনিগ্রহে বিশ্বাস করে না

ইসলাম আত্মনিগ্রহে বিশ্বাস করে না। বৈরাগ্য সাধনে মুক্তি এমন মতবাদকে ইসলাম প্রত্যাখ্যান করেছে।ইবাদতের নামে নিজের সাধ্যের চেয়ে বেশি কিছু করতে...... বিস্তারিত

22.10.2017 | 03:15 AM

বিনোদন

সর্বশেষ সংবাদ

সব পোস্ট

English News

সম্পাদকীয়

বিশেষ প্রতিবেদন

মানুষ মানুষের জন্য

আমরা শোকাহত

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

অন্যরকম

ভিডিওতে ৭১এর মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস

ভিডিও সংবাদ