নিউজ রুম এডিটর, নিউজ৭১অনলাইন

দ্বীন পালনের ক্ষেত্রে মুসলিমদের উপর শক্তি প্রয়োগ করা যাবে কি..?

ডাঃ হাফেজ মওলানা মোঃ সাইফুল্লাহ মানসুর
কোন কোন নামধারী মুসলিম ইসলামের হুকুম-আহকাম পালনের সম্পূর্ণ উদাসীন। তারা ইচ্ছা হলে তা পালন করে আবার ইচ্ছা হলে তা পরিহার করে। তারা মনে করে ইসলামের হুকুম-আহকাম পালন করার ক্ষেত্রে কোন “জোর-জবরদস্তি নেই” তাই তারা নিজেদের ইচ্ছামত বল্গাহীন জীবন-যাপন করতে চায়। তাদেরকে এ ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হচ্ছে যে, ইসলাম শুধুমাত্র যারা ইসলাম গ্রহণ করেনি তাদেরকে জোর করে ইসলামে দিক্ষিত করার ব্যাপারে শক্তি প্রয়োগ করে না। কিন্তু যারা নিজেদের মুসলিম বলে দাবী করে তারা ইসলামের প্রতিটি আইন ও যাবতীয় হুকুম-আহকাম বিশেষ করে আল্লাহর ফরজ বিধানগুলি মানতে তারা বাধ্য। সেখানে শুধু জোর-যবরদস্তিই নয় বরং শরীআত না মানার কারনে তাদের জন্য শাস্তিও ইসলামে নির্ধারিত রয়েছে।তুমি মুসলিম বলে দাবি করবে অতচ আল্লাহর ফরজ-ওয়াজিব হুকুমগুলোর ব্যাপারে গাফেলতি প্রদর্শন করবে কিংবা পালনের ক্ষেত্রে এটি পরিহার করবে, এটা ইসলাম বরদাস্ত করে না। যারা আল্লাহর ফরজ ও ওয়াজিব হুকুমগুলি পালন না করে তাদের শাস্তির ব্যাপারে সকল ওলামায়ে কেরাম একমত। কিন্তু তাদের শাস্তির ধরনের ক্ষেত্রে রয়েছে বিভিন্ন মতামত-

যেমন নামাজের ব্যপারে বিভিন্ন হাদীসের আলোকে আহলে সুন্নাত বিদ্বানগণের মধ্যে ইমাম মালেক, ইমাম শাফেঈ, এবং প্রাথমিক ও পরবর্তী যুগের প্রায় সকল ওলামায়ে-কেরামগন এই মর্মে একমত হয়েছেন যে, যে ব্যাক্তি নামাজ পড়ে না সে ব্যক্তি 'ফাসিক্ব' এবং তাকে তওবা করতে হবে। যদি সে তওবা করে নামাজ আদায় শুরু না করে, তবে তার শাস্তি হবে মৃত্যুদন্ড। 
আর ইমাম আবু হানীফা (রহ.) মতে, তাকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে এবং নামাজ আদায় না করা পর্যন্ত জেলখানায় আবদ্ধ রাখতে হবে।
ইমাম আহমদ বিন হাম্বল বলেন, ঐ ব্যক্তিকে নামাজের জন্য ডাকার পরেও যদি সে ইনকার (অস্বিকার) করে ও বলে যে 'আমি নামাজ আদায় করব না' এবং এইভাবে ওয়াক্ত শেষ হয়ে যায় তখন তাকে কঠোর শাস্তি ওয়াজিব। অবশ্যই এরূপ শাস্তিদানের দায়িত্ব হ'ল ইসলামী সরকারের। পিতা-মাতা তার সন্তানের ক্ষেত্রে বেত্রাঘাত এমনকি তাকে আলাদাও করে দিতে পারবে। কেও কারো অধিনস্ত থাকলে দায়িত্বশীল ব্যক্তি তার অধিনস্তদের উপর শক্তি প্রয়োগ করে শরিয়ত মানতে বাধ্য করাতে পারবে। সে যদি শরিয়ত মানতে অস্বিকার করে তার দায়িত্ব থেকে বের করে দিতে পারবে।

শুধু তাই নয় প্রয়োজনে তাদের সাথে যুদ্ধ করে তাদেরকে দ্বীনের যাবতীয় আইন মানতে বাধ্য করানো অন্যান্য মুসলিমদের উপর ওয়াজিব। (তাফসীরে আবু বকর যাকারীয়া) যেমনটি সিদ্দিকে আকবর আবু বকর রাদিয়াল্লাহু আনহুর খেলাফত কালে যাকাত প্রদানে অনীহাকারীদের বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করেছিলেন।তারপরেও শরিয়তের হুকুম পালনের ক্ষেত্রে নমনীয়তার কোন সুযোগ নেই। আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে তার দ্বীন সঠিকভাবে বুঝার তৌফিক দান করুন এবং সকল ধরনের ফেতনা-ফাসাদ হতে দুরে থেকে তার হুকুম পালন করা আমাদের জন্য সহজ করে দিন আমিন ।

লেখক : সভাপতি, বাংলাদেশ ইসলাম প্রচার পরিষদ, খুলনা মহানগরী

05.02.2018 | 01:48 PM | সর্বমোট ৩৮১ বার পঠিত

দ্বীন পালনের ক্ষেত্রে মুসলিমদের উপর শক্তি প্রয়োগ করা যাবে কি..?" data-width="100%" data-numposts="5" data-colorscheme="light">

জাতীয়

সিএমএইচে সুযোগ পেলে শেখ হাসিনাকে স্কয়ারে নিয়ে যেতাম না

সাবজেলে বন্দি থাকাবস্থায় বতর্মান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল-সিএমএইচে চিকিৎসা করানোর সুযোগ পেলে স্কয়ারে নিয়ে যেতাম না বলে মন্তব্য...... বিস্তারিত

18.06.2018 | 05:38 PM




রাজধানী

রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে নানা বয়সী মানুষের ঢল

গতকাল ঈদের নামাজের পর থেকেই রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে নানা বয়সী মানুষের ঢল নামে। আজ রবিবারও সব বিনোন কেন্দ্রেগুলোতে রয়েছে প্রচণ্ড...... বিস্তারিত

17.06.2018 | 06:23 PM


চট্টগ্রাম

সিএনজি ও চাঁদের গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং শামলাপুর সড়কে সিএনজি ও চাঁদের গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষে এক সিএনজি চালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও...... বিস্তারিত

18.06.2018 | 05:29 PM

ফেইসবুকে নিউজ ৭১ অনলাইন

ধর্ম

বিনোদন

মহম্মদপুরে ঈদ আনন্দ’পর্যটকের ঢল শেখ হাসিনা সেতুতে

মাহামুদুন নবী(মাগুরা):-মাগুরা- ফরিদপুর জেলার বাসিন্দাদের একাত্বিকরন ও যোগাযোগ ব্যাবস্থার উন্নয়নের দিকে বিশেষ দৃষ্টি রেখে মাগুরা মহম্মদপুরের মধুমতিদ নদীতে  শেখ হাসিনা...... বিস্তারিত

18.06.2018 | 12:07 AM

সর্বশেষ সংবাদ

সব পোস্ট

English News

সম্পাদকীয়

বিশেষ প্রতিবেদন

মানুষ মানুষের জন্য

আমরা শোকাহত

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

অন্যরকম

ভিডিওতে ৭১এর মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস

ভিডিও সংবাদ