আজহার মাহমুদ

শিক্ষকদের দুর্নীতি বন্ধ করুন

দক্ষিণ চট্টগ্রাম বাঁশখালী উপজেলার ১০নং চাম্বল এলাকায় প্রতিষ্টিত চাম্বল উচ্চ বিদ্যালয়ের কথা হয়তো অনেকেই শুনেছি। আমি নিজেও সেই স্কুলের একজন প্রাক্তন শিক্ষার্থী। কিন্তু আজ বড় লজ্জা আর কষ্ট নিয়ে বলতে হচ্ছে এই স্কুলের কতিপয় শিক্ষকদের দূ্র্নীতির কথা। স্থানীয় পত্রিকা থেকে জানতে পারলাম এই দুর্নীতিবাজ শিক্ষকদের দুর্নীতির মহাকাব্য। ২০১২ সালে জেএসসি পাশ করার পর এই স্কুল ত্যাগ করেছিলাম আমি নিজেও। কারণ চেখের সামনে অন্যায় অবিচার হলে সেই অন্যায় সহ্য করাটা আমার অভ্যাসে ছিলো না। আজ যখন স্থানীয় পত্রিকায় দেখেলাম সেই অন্যায়কারি শিক্ষকরা টাকা দিয়ে প্রশ্ন বিক্রি করছে এবং জিপিএ.৫ বিক্রি করছে তখন সবাই অবাক হলেও আমি অবাক হলাম না। কারণ আমি যখন সেই স্কুলে অধ্যায়ন করতাম তখন থেকেই এই শিক্ষক গুলো টাকা দিয়ে স্কুলের প্রশ্ন বিক্রি করতো। সেই সাথে বার্ষিক পরিক্ষায় টাকার মাধ্যমে পাশ করিয়ে দিতো। তবে স্কুলটি তেমন ছিলো না। স্কুলটিতে ছিলো অনেক ভালো ভালো মানসম্মত শিক্ষক। তাদের অনুপস্থিতি আর পদ হননের সুযোগে এখানে সুযোগ নিয়েছে দুর্নীতিবাজ শিক্ষকরা। বর্তমান প্রধান শিক্ষক ও তার সহকর্মী অনেক শিক্ষকরা স্কুলের অসংখ্য দুর্নীতির সাথে সম্পৃক্ত। তাদের রয়েছে একটি মারাত্বক সিন্ডিকেট। জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থের বিনিময়ে পাশ করে দেয়ার সুযোগ দিয়ে প্রচুর অর্থ আয় করছে এ সিন্ডিকেট। যখন থেকে স্কুলের প্রধান শিক্ষক শফিকুর রহমান স্কুলে যোগ দিয়েছে তখন থেকেই স্কুলের পরিবেশে দুর্নীতির গন্ধ মিলছে। এর পর থেকে স্কুলের কিছু কিছু শিক্ষক নিয়মিত স্কুলে না এসেও হাজিরা খাতায় হাজিরা দেখিয়ে যান। তিনি স্কুলে যোগদানের পর স্কুলে কতিপয় সন্ত্রাসী একটি ছাত্র সংগঠনের কর্মীদের নিয়ে একটি সিন্ডিকেট করেছিলেন যার প্রধান ছিল আরাফাত মুরাদ এবং ইমামুল হাসান আল ইমরান। তাদের কাজ ছিলো প্রধান শিক্ষক শফিকুর রহমান, বাবুল দত্ত সহ অন্য শিক্ষক যাদের নাম দুর্নীতির সংবাদে এসেছে তাদের জন্য অবৈধভাবে পাশ করিয়ে দেয়ার নামে অর্থ কালেকশন করা। বাবুল দত্ত নামক শিক্ষকটি ক্লাসের ভেতর ছাত্রদের প্রশ্ন বিক্রি করতেন। আর এসবের দায়িত্ব থাকে আরফাত এবং ইমরান নামক ছেলে দুটি।  তারা যাই বলতো ওই শিক্ষকরা তাই করতো, তাদের হাতে ক্লাসের দায়িত্ব হাজিরার ভার সব কিছু। ক্লাসে কয়েকবার শিক্ষকরে অনুপস্থিতে তারাই হাজিরা ঢাকতো। এমনকী বেত্রাঘাতের মাধ্যমে শাস্তিও তাদের মাধ্যমে প্রদান করতো। কোচিং যারা পড়তো না তাদেরকে ফেল করার হুমকী এবং নানাভাবে হয়রানী করতো বাবুল দত্ত নামক দু্র্নীতিবাজ ওই শিক্ষকটি। এভাবে অবৈধভাবে স্কুলকে ধরে রেখেছে মাস্টার শফিক ও বাবুলরা। তাদের অন্যায়ের বিরোদ্ধে ছাত্র শিক্ষক কমিটি কেউ মুখ খুলতে পারে না। তারা বোর্ড পরীক্ষায় ছাত্রদের জি.পি.এ ৫ কিনে দেয়ার কন্ট্রাক করতো ওই আরফাত, ইমরানের মাধ্যমে। সারা দেশে যখন প্রশ্নফাসের বিরোদ্ধে সোচ্চার হচ্ছে তখন কেন্দ্রর দায়িত্ব পাওয়া এমন শিক্ষকের কর্মকান্ড দেখে সকলেই অবাক হবে। স্থানীয় পত্রিকা সহ কিছু সত্র থেকে জানতে পারলাম ২০ হাজার টাকা দিলে পাশ করিয়ে দিবে, আর ৩০ হাজার দিলে জিপিএ.৫ দিবে বলে একসাথে একটি ছাত্র থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়েছে এই শিক্ষক গুলো। এদের সাথে আরো কতিপয় শিক্ষক জড়িত রয়েছে। এভাবে এই স্কুলে টাকার ব্যবসা করতো এসকল শিক্ষকরা। আর এই ব্যবসা এখনও চলছে। শিক্ষা প্রতিষ্টানটি এখন আর শিক্ষা প্রতিষ্টান নেই, এখন এটি টাকার প্রতিষ্টানে রূপ নিয়েছে। এখানে শিক্ষকরা টাকা নেওয়ার জন্য আসে আর ছাত্ররা টাকা দিয়ে সার্টিফিকেট নেওয়ার জন্য আসে। দিন শেষে শিক্ষা নামক কিছুই এখানে পাওয়া যায় না। অথচ বাইরে সকলেই জানে এটি একটি শিক্ষা প্রতিষ্টান। এসকল শিক্ষকদের জন্য আমাদের দেশের সকল শিক্ষকদের উপর আঘাত আসে। এরাই শিক্ষক নামের কলঙ্ক। তাই মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আবেদন রইলো এসকল শিক্ষকদের উপর যেনো কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়।

লেখক:
আজহার মাহমুদ
প্রাবন্ধিক, কলামিষ্ট ও শিক্ষার্থী
বিবিএ(অনার্স), হিসাববিজ্ঞান বিভাগ(প্রথম বর্ষ), জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, ওমরগনি এমইএস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, চট্টগ্রাম।
ইমেইল: azharmahmud705@gmail.com

06.07.2018 | 02:34 PM | সর্বমোট ৩১৭ বার পঠিত

শিক্ষকদের দুর্নীতি বন্ধ করুন" data-width="100%" data-numposts="5" data-colorscheme="light">

জাতীয়

সরকার উৎখাতে দুর্নীতিবাজরা জোট বেঁধেছে

আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাতের জন্য দুর্নীতিবাজরা জোট বেঁধেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।রোববার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের হোটেল হিলটনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের...... বিস্তারিত

24.09.2018 | 12:05 PM


রাজধানী

চট্টগ্রাম

বাস কেড়ে নিলো পুলিশ কনস্টেবলের প্রাণ

চট্টগ্রাম মহানগরীতে এবার বেপরোয়া যাত্রীবাহী বাস প্রাণ কেড়ে নিলো এক পুলিশ কনস্টেবলের। নিহত কনস্টেবলের নাম আমান উল্লাহ (৫৫)। গতকাল রবিবার রাত...... বিস্তারিত

24.09.2018 | 10:18 AM

ফেইসবুকে নিউজ ৭১ অনলাইন

ধর্ম

শরীর রক্তাক্ত করে শোক পালন হারাম

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা হযরত আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ীর ফতোয়া অনুযায়ী মহররম ও আশুরার শোক পালনের ক্ষেত্রে শরীর রক্তাক্ত করা হারাম। এমনকি...... বিস্তারিত

18.09.2018 | 01:47 PM

বিনোদন

প্রেম করছেন শাকিব-শ্রাবন্তী!

কলকাতার গণমাধ্যমে সরগরম শাকিব খান ও শ্রাবন্তী নাকি প্রেম করছেন। এছাড়া টলিউড তারকাদের খুনসুটিতেও সহকর্মীরা নাকি শ্রাবন্তীকে ‘শ্রাবন্তী খান’ বলেই...... বিস্তারিত

23.09.2018 | 12:44 PM

সর্বশেষ সংবাদ

সব পোস্ট

English News

সম্পাদকীয়

বিশেষ প্রতিবেদন

মানুষ মানুষের জন্য

আমরা শোকাহত

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

অন্যরকম

ভিডিওতে ৭১এর মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস

ভিডিও সংবাদ