অনলাইন ডেস্ক :

মধ্যবয়সীদের চরিত্রায়ন কোথায়?

শাবনূরের কি এখন স্কুল পড়ুয়া মেয়ের চরিত্রে অভিনয় সম্ভব? নায়কের সঙ্গে নেচে গেয়ে মাত করবেন, পপিও নিশ্চয়ই সেই বয়সে নেই। মৌসুমীর ছেলে ভার্সিটিতে পড়ে। পূর্ণিমাও মা হওয়ার পর সিনেমা থেকে দূরে। ফিটনেস ঠিক থাকলেও বড় পর্দার ঝুঁকিটা ঠিক নিতে চাচ্ছেন না মনে হয়। নাটকে খুশি মনে নিয়মিত অভিনয় করে যাচ্ছেন। সিমলা এই আছে এই নেই।
নাচে গানে ভরপুর সিনেমার নায়িকা হওয়া নিশ্চয়ই এখন আর তাঁদের কারও পক্ষে সম্ভব নয়। তারা অভিনয় করতে পারেন, কিন্তু দর্শক তা গ্রহণ করবেন কিনা তা সন্দেহ। তাদের সরে যাওয়া কিংবা সরিয়ে দেয়, এর প্রধান দুই কারণ হচ্ছে ফিটনেস ও চরিত্র। একটা বয়সে এসে তারা সিদ্ধান্তহীনতায় পড়ে গেছে কোন চরিত্রে অভিনয় করবেন! দু একজন নায়িকা হয়ে কিছু চেষ্টা চালালেও রীতিমতো তা নিয়ে সমলোচনার ঝড় বয়ে গেছে। বলিউড কিংবা হলিউড অভিনেত্রীরা ফিটনেসের জন্য পার পেয়ে যায়। মধ্যবয়স্ক হলেও মাধুরী, শ্রীদেবী, কারিশমারা ক্যারিয়ার দিব্যি চালিয়ে যাচ্ছেন। কাজল, রানি মুখার্জিরাও নতুন মেজাজে ফিরছেন।
তাহলে আমাদের দেশের নায়িকারা ফিরছেন না কেন? ফিটনেসের দায়ভার নায়িকাদের অবশ্যেই নিতে হবে। সঠিকভাবে শরীরের চর্চা না করাতে তারা নিজেদের হারিয়ে ফেলেছে। কিন্তু তাদের হারিয়ে যাওয়ার পিছনে যে আমাদের পরিচালকদেরও কম হাত নেই। পরিচালকরাও তো তাদের ফেরাতে পারতেন। সেই চেষ্টা তাদের নেই। মধ্যবয়সী নায়িকারা কোনো চরিত্রে অভিনয় করবেন? আমাদের দেশে মূলত নায়িকা থেকে সরে মা কিংবা বোন হতে হয়। এই তিন প্রধান চরিত্রেই ঘোরফেরা করতে হয় নারীদের। মা কিংবা বোন হওয়াটাও অখুশীর কিছু নয়। কিন্তু তার গুরুত্বটা তো থাকতে হবে।
নায়ক- নায়িকা নির্ভর একটি ইন্ডাস্ট্রি হলে যা হয়। বলিউডের দিকে তাকালে দেখতে পাই বিরতির পরে এক একজন নায়িকা নতুন রুপে ফিরছেন। নায়িকা না হলেও তাদের ঘিরে গল্প বোনা হচ্ছে। সে গল্প আর চরিত্র দর্শক গ্রহণও করছে। আর আমরা পড়ে আছি সেই কলিযুগের ফর্মূলায়। মম, মারদানি, কাহানি, ইংলিশ ভিংলিশ, জাজবা সিনেমা গুলো কিন্তু প্রশংসার পাশপাশি ব্যাবসাসফলও হয়েছে। এসব ছবি বলিউডের কিছু নায়িকার প্রত্যাবর্তন ছিল।
আমাদের দেশের নায়িকাদের যেমন ফিটনেসের প্রতি যত্নশীল হতে হবে। তেমনি তাদের ফেরানোর জন্য পরিচালকদেরও ভাবতে হবে। মনে রাখতে হবে এখনো অনেক নায়িকাদের গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। তাঁদের নামেও সিনেমা চলবে। যদি ঠিকঠাক চরিত্র সৃষ্টি সম্ভব হয়। তাহলে অভিনয়ে এখনো মৌসুমী, শাবনূর , পূর্ণিমা , পপিদের দেওয়ার অনেক কিছু আছে।
ছোটপর্দার অভিনেত্রীদের একটু অন্য ঝামেলা। অনেক অভিনেত্রীই এখনো প্রেমের বুলি আওরাচ্ছে অবলীলায়। রেস্টুরেন্টে গিয়ে প্রেমিকের সঙ্গে আড্ডা দেয়। মধ্যবয়সী সেসব অভিনেত্রীদের প্রেম দেখে দর্শক রীতিমতো বিরক্ত। তাই অনেকেই গ্রহনযোগ্যতা পাচ্ছে না।
আমাদের একটা সময় ছিল মধ্যবিত্ত, ভরপুর পরিবারের চরিত্র। যেখানে বাবা,মা, বড় ভাই, ছোট ভাই, ভাবি, দাদা , দাদি সবাই ছিলেন উপস্থিত। সময়ের স্রোতে তা হারিয়ে যেতে বসেছিল। নাটকে সেই ধারটা আবার ফিরছে। ফেরার ফল হিসাবে অনেক অভিনেত্রীরই আগমন ঘটতে পারে। কিন্তু সেই আগমনকে স্বাগতম জানাতে হবে এমন কিছু চরিত্র দিয়ে যখন তারা টিকে থাকতে আগ্রহী হবেন। আশি নব্বই কিংবা তারও পরে একঝাক তারকা টিভি মুখের আগমন ঘটেছিল। যার মধ্যে আজ বেশিরভাগই অনিয়মিত। কেন অনিয়মিত? এর উত্তর বেশ কয়েকজন অভিনেত্রীর মুখেই শোনা গিয়েছে নানা সময়ে। তাদের সবার মুখে প্রায় একই কথা, ‘গুরুত্বহীন কোনো চরিত্রে অভিনয়ের চেয়ে না করা ভালো।’
তানভীন সুইটি বলেন, ‘যেসব চরিত্রের জন্য অফার আসে। সেখানে আমার কোন গুরুত্বই নেই। গল্পে অন্য আর একজনের গুরুত্ব থাকবে তাতে আমার অসুবিধা নেই। কিন্তু আমার চরিত্রটা যদি নামেমাত্র থাকে। তবে কীভাবে সম্ভব! একটা বয়সে এসে আগে যে নাম করেছি। তা খোয়াতে চাই না। এখনকার গল্পগুলো প্রেম নিয়েই বেশি হয়। কিছু পারিবারিক গল্পে আমাদের জন্য চরিত্র রাখা হয়। যদি কিছুটা হলেও মনের মত হয় না করি না।’
এটা যে আজকের মধ্যবয়সী তার জন্য হুমকির নয়। আজকের নায়িকা আগামীকাল মধ্যবয়সী হতে পারে। তখন তারও চরিত্র সংকটে ভুগতে হবে। বিদায় জানানোর একটা সীমা রেখে চলে আসবে সবার মাঝে। প্রতিনিয়ত শিল্পী সংকট দেখা দিবে। কারণ আমরা যা পাচ্ছি, তার চেয়ে অনেক বেশি হারাচ্ছি। নতুনদের পরিচর্যাটা পুরাতনরাই করতে পারবেন। এখনো মধ্যবয়সী অভিনেত্রীদের অনেক বেশি দরকার।

22.09.2017 | 03:39 AM | সর্বমোট ১৩৩ বার পঠিত

মধ্যবয়সীদের চরিত্রায়ন কোথায়?" data-width="100%" data-numposts="5" data-colorscheme="light">

জাতীয়

রোহিঙ্গা ইস্যুতে শেখ হাসিনাকে জাতিসংঘ মহাসচিবের ধন্যবাদ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। এ সময় রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপে অকুণ্ঠ...... বিস্তারিত

22.10.2017 | 01:33 AM




রাজধানী

টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন রাজধানী, দুর্ভোগ চরমে

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে গতকাল শুক্রবার থেকে আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত রাজধানীতে টানা বৃষ্টি ঝরছে। আর এই বৃষ্টি আজো দিনের অধিকাংশ সময়...... বিস্তারিত

21.10.2017 | 10:48 AM

চট্টগ্রাম

ফেইসবুকে নিউজ ৭১ অনলাইন

ধর্ম

ইসলাম আত্মনিগ্রহে বিশ্বাস করে না

ইসলাম আত্মনিগ্রহে বিশ্বাস করে না। বৈরাগ্য সাধনে মুক্তি এমন মতবাদকে ইসলাম প্রত্যাখ্যান করেছে।ইবাদতের নামে নিজের সাধ্যের চেয়ে বেশি কিছু করতে...... বিস্তারিত

22.10.2017 | 03:15 AM

বিনোদন

সর্বশেষ সংবাদ

সব পোস্ট

English News

সম্পাদকীয়

বিশেষ প্রতিবেদন

মানুষ মানুষের জন্য

আমরা শোকাহত

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

অন্যরকম

ভিডিওতে ৭১এর মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস

ভিডিও সংবাদ