নিউজ ৭১ অনলাইন

জটিল পথে রোহিঙ্গা সংকট

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর রোহিঙ্গাবিরোধী অভিযান চলমান থাকায় প্রাণ বাঁচাতে রোহিঙ্গারা দলে দলে ছুটে আসছে বাংলাদেশে। শুধু মুসলমান রোহিঙ্গা নয়, হিন্দু রোহিঙ্গারাও দলে দলে আসছে। জাতিসংঘের উদ্বাস্তুবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের হিসাব অনুযায়ী, গত ১১ দিনে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে ৯০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা। অভিযানে মিয়ানমারে এ পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ৪০০ ছাড়িয়েছে বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ অবস্থায়ও অনেকে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। তাদের কেউ কেউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, কারো কারো মৃত্যু হয়েছে। সীমান্তে থাকা নাফ নদ পার হতে গিয়ে অনেকের সলিল সমাধি হয়েছে। এ পর্যন্ত ৫৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, যাদের বেশির ভাগই নারী ও শিশু। মিয়ানমারে এত বড় নিষ্ঠুরতার ঘটনা চলতে থাকলেও আন্তর্জাতিক অঙ্গন এখনো যথেষ্ট সোচ্চার নয়। প্রতিবাদও খুব জোরালো নয়। অথচ ব্যাপক রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ নিয়ে রীতিমতো প্রমাদ গুনছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশে প্রথম রোহিঙ্গাদের ব্যাপক অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটে ১৯৭৮ সালে। কয়েক লাখ রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ ঘটেছিল তখন। এদের মধ্যে পরে অনেকে ফিরে গেলেও অনেকে থেকে যায় বাংলাদেশে। এর পরও দফায় দফায় রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটতেই থাকে। আবারও বড় ধরনের রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের ঘটনা ঘটে ১৯৯১ সালে। গত বছরও সেনা অভিযানের মুখে অর্ধ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছিল। বর্তমানে বাংলাদেশে পাঁচ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা অবস্থান করছে বলে বিভিন্ন সূত্রে উল্লেখ করা হয়। প্রায় চার দশক ধরে বাংলাদেশ এই বিপুলসংখ্যক রোহিঙ্গার ভরণ-পোষণের ভার বহন করছে। কিন্তু সমস্যার স্থায়ী সমাধানের পথে কোনো অগ্রগতি নেই বললেই চলে। সর্বশেষ জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বে একটি জাতিসংঘ কমিশন গঠিত হয়েছিল। আশা করা গিয়েছিল, সমস্যার একটি স্থায়ী সমাধানের পথে কিছুটা হলেও অগ্রগতি হবে। কিন্তু মিয়ানমার সরকার আনান কমিশনের প্রতিবেদন হস্তান্তরের পর দিনই সেখানে যে পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে, তাতে আশার আলো খুব কমই দেখা যাচ্ছে।

এমন অবস্থায় বাংলাদেশে আসছেন ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। শরণার্থী পুনর্বাসনসহ আনান কমিশনের রিপোর্টে করা সুপারিশগুলো বাস্তবায়নে কী পদক্ষেপ নেওয়া যায়, সে বিষয়ে তাঁর সঙ্গে আলোচনা করতে হবে। জাতিসংঘ, ওআইসি, বিভিন্ন মুসলিম দেশসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফোরামের সঙ্গেও ব্যাপক আলোচনা চালিয়ে যেতে হবে। জানা যায়, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের এ দুরবস্থা নিয়ে দেশি-বিদেশি নানা অপশক্তি বেশ তৎপর হয়ে উঠেছে। তাদের সেসব অপতৎপরতা বন্ধ করতে হবে। যেসব রোহিঙ্গা শরণার্থী খোলা জায়গায়, রাস্তার পাশে রোদ-বৃষ্টিতে অত্যন্ত মানবেতর জীবন যাপন করছে তাদের দ্রুত অন্য কোনো জায়গায় স্থানান্তর করা যায় কি না তা-ও ভাবতে হবে। পাশাপাশি মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়টি দ্রুততর করতে হবে। এ কাজে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়েরও সহযোগিতা নিতে হবে।

05.09.2017 | 08:29 PM | সর্বমোট ১৫০ বার পঠিত

জটিল পথে রোহিঙ্গা সংকট" data-width="100%" data-numposts="5" data-colorscheme="light">

জাতীয়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘হত্যার ষড়যন্ত্র ভণ্ডুল

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর মতোই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তার দেহরক্ষীরা হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিলেন এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশ্বস্ত ও কাউন্টার...... বিস্তারিত

24.09.2017 | 11:04 AM




রাজধানী

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের গণহত্যার প্রতিবাদে বাংলাদেশ কৃষক লীগ কর্তৃক মানববন্ধন

মিয়ানমার সরকারের উস্কানিতে সে দেশের সেনাবাহিনী ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠিকর্তৃক রোহিঙ্গা মুসলিম জনগোষ্ঠীর উপর পাশবিক নির্যাতন, খুন ও অগ্নিসংযোগ এবং গণহত্যার প্রতিবাদে আজ...... বিস্তারিত

23.09.2017 | 04:22 PM

চট্টগ্রাম

ফেইসবুকে নিউজ ৭১ অনলাইন

ধর্ম

বিনোদন

এ সময়ের জনপ্রিয় নাট্য পরিচালক রুমান রুনি

এ সময়ের জনপ্রিয় নাট্যপরিচালক  রুমান রুনি, সব সময় সৃষ্টিশীল নাটক তৈরী করে দর্শকদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন অনেক আগেই ।...... বিস্তারিত

24.09.2017 | 12:46 PM

‘ট্রল’ তারকা

24.09.2017 | 09:51 AM

সর্বশেষ সংবাদ

সব পোস্ট

English News

সম্পাদকীয়

বিশেষ প্রতিবেদন

মানুষ মানুষের জন্য

আমরা শোকাহত

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

অন্যরকম

ভিডিওতে ৭১এর মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস

ভিডিও সংবাদ