১৫০ সেতুসহ বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১:৫৪ অপরাহ্ণ , অক্টোবর ১৯, ২০২৩

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতায় নির্মিত ১৫০টি সেতু, ১৪টি ওভারপাস ও বিআরটিএ মিরপুর ভেহিকল ইন্সপেকশন সেন্টার ও ডিটিসিএ নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) বেলা ১টায় তেজগাঁওয়ের সড়ক ভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে এসব প্রকল্প উদ্বোধন করেন তিনি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সড়ক ভবনে পৌঁছালে তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী।

এ সময় সড়ক ভবন প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল ‘তৃতীয় নেত্র’ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর সেখানে একটি গাছের চারা রোপণ করেন তিনি।

দেশের আট বিভাগের ৩৯টি জেলায় নির্মিত এই ১৫০ সেতুর মোট দৈর্ঘ্য ৯ হাজার ৪৫৪ মিটার বা ৯ দশমিক ৪৫ কিলোমিটার। যা নির্মাণে মোট ব্যয় হয়েছে ৩ হাজার ২৮৭ কোটি টাকা। এর মধ্যে ময়মনসিংহ বিভাগের ৪০, ঢাকা বিভাগের ৩২, চট্টগ্রাম বিভাগের ২৭ ও রাজশাহী বিভাগে ২২টি সেতু রয়েছে। এছাড়া খুলনা বিভাগে ১২, বরিশাল ও রংপুর বিভাগে আটটি করে এবং সিলেট বিভাগে রয়েছে একটি সেতু।

ময়মনসিংহে ব্রহ্মপুত্র ব্রিজের চাপ কমাতে কেওয়াটখালী রেল ব্রিজের পাশে একটি আর্চ স্টিল সেতু এবং নগরীর রহমতপুরে ব্রহ্মপুত্রে আরেকটি সেতুর নির্মাণ করা হচ্ছে। এ দুটি সেতুর ভিত্তি প্রস্তর ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ ছাড়া রংপুর, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, গাইবান্ধা জেলায় ১৪টি ওভারপাস উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। ৬৮৯ মিটার দৈর্ঘ্যের এসব স্থাপনায় নির্মাণ ব্যয় হয়েছে ২০৮ কোটি টাকা।

এ ছাড়া সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের পরিবার ও আহত ব্যক্তিদের হাতে আর্থিক সহায়তার চেক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী।

সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদফতর জানায়, ১৫০টি সেতু ও ১৪টি ওভারপাস দেশের প্রান্তিক জনগণের যোগাযোগব্যবস্থায় সমৃদ্ধি আনবে। এ ছাড়া তাদের জীবন নিরাপদ ও সময় সাশ্রয়ী করে তুলবে।

Loading