চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার চার

নকল সিগারেট তৈরি করে বিক্রি

প্রকাশিত: ১:৫২ অপরাহ্ণ , অক্টোবর ১৯, ২০২৩

ব্র্যান্ডরোল জালিয়াতি করে অবৈধভাবে তৈরি করা নকল সিগারেট বিক্রির দায়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের কাছ থেকে বেনসন, ডারবি, স্টার, গোল্ডলিফসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ১৬ হাজার ২৮৩ প্যাকেট নকল সিগারেট জব্দ করা হয়েছে। এসব নকল সিগারেট বাজারজাত করা হলে সর্বমোট ৭ লাখ ৭৪ হাজার ৬৯৬ টাকা সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দেয়া হত।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) নাহিদ আদনান তাইয়ান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘গোপন তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর ২০২৩) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজারে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে আটক চারজন নামিদামি ব্র্যান্ডের নাম ব্যবহার করে নকল সিগারেট তৈরি করে আসছিল। তারা ওই নকল সিগারেটে নকল ব্র্যান্ড রোল লাগিয়ে বাজারজাত করতো। এ ঘটনায় আটক চারজনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

গ্রেপ্তার চারজন হলেন- ইয়াসিন স্টোরের মো. হোসাইন (৫০), দিদার স্টোরের মো. আমজাদ হোসেন চৌধুরী (৪১), মক্কা স্টোরের বশির আহমেদ (৪২) ও জাহানারা স্টোরের মো. শহীদুল আলম (৩০)। এদের মধ্যে হোসাইনের কাছ থেকে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ২ হাজার ৫২৬ প্যাকেট, আমজাদ হোসেনের কাছ থেকে ৬ হাজার ৪২৫ প্যাকেট, বশির আহমেদের কাছ থেকে ৩ হাজার ১৬ প্যাকেট ও শহীদুল আলমের কাছ থেকে ৪ হাজার ৩১৬ প্যাকেট নকল সিগারেট জব্দ করা হয়।

নগর গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিরা দীর্ঘদিন ধরে নকল সিগারেট তৈরি করে প্যাকেটের গায়ে নকল রাজস্ব স্ট্যাম্প লাগিয়ে সেগুলো বাজারজাত করে আসছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছেন, বিপ্লব, রবিউল, শুক্কুর ও ওয়াসিমসহ অজ্ঞাতনামা আরও কয়েকজনের সহায়তায় তারা এসব সিগারেট রিয়াজউদ্দিন বাজারে মজুদ ও বিক্রয় করতো। সিগারেটের প্যাকেটের গায়ে লাগানো শুল্ক কর পরিশোধিত লেখা রাজস্ব স্ট্যাম্প জাল জেনেও তারা এসব সিগারেট ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিলেন।

Loading