টেকনাফে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেফতার ৬

প্রকাশিত: ৫:০৫ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ৩, ২০২৩

কক্সবাজারের টেকনাফে শাহপরীর দ্বীপের কাছে নাফ নদীর মোহনা এবং রঙ্গীখালী নাফ নদী সংলগ্ন খড়ের দ্বীপে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৬ ডাকাতকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। এসময় তাদের কাছ থেকে ১৪টি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৪৮৬ রাউন্ড গোলাবারুদ এবং মাদক উদ্ধার করা হয়। গতকাল সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ৯ ঘন্টা ধরে কোস্ট গার্ড টেকনাফ ও সেন্টমার্টিন স্টেশন টিম পৃথক অভিযান চালায়।

মঙ্গলবার দুপুরে কোস্ট গার্ডের টেকনাফ স্টেশন কমান্ডারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে কোস্ট গার্ডের টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লে. কমান্ডার মোহাম্মদ মহিউদ্দিন জামান জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে কোস্ট গার্ডের সেন্টমার্টিন স্টেশনের একটি টিম নাফ নদীর মোহনায় একটি সন্দেহভাজন ট্রলারকে ধাওয়া করলে ট্রলারটি নাফ নদীর ভেতরে রংগীখালী এলাকায় বিচ্ছিন্ন খড়ের দ্বীপে ঢুকে পড়ে। এসময় কোস্ট গার্ডের টেকনাফ স্টেশনের আরেকটি টহল টিম
অভিযানে যোগ দেয়। পরে কোস্ট গার্ডের যৌথ টহল টিম ওই দ্বীপে রাতভর অভিযান চালিয়ে ডাকাত দলের ৬ জনকে গ্রেফতার করে। তারা সকলেই রোহিঙ্গা এবং টেকনাফ ও উখিয়ায় অবস্থিত বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা বলে ব্রিফিংয়ে জানানো হয়।

তিনি জানান, গ্রেফতার ডাকাত সদস্যদের দেয়া তথ্য মতে, খড়ের দ্বীপে প্যারাবনের মধ্যে চিরুণী অভিযান চালিয়ে বিদেশী পিস্তল ২টি, একনলা বন্দুক ৩ টি, এলজি ২টি, শর্ট গান ১টি, দেশি পিস্তল ৬টি, পিস্তলের ম্যাগাজিন ৪টি, তাজা গোলা ৪৫০ রাউন্ড, ফাঁকা গোলা ৩৬ রাউন্ড, রামদা ৪টি, ইয়াবা ২০,০০০ পিস, বিদেশি মদ ২১ বোতল, বিয়ার ৫৫১ ক্যান, ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত পোষাক ৭ সেট, হ্যান্ডকাফ ১টি, ল্যান্ড ফোন ১টি, বাটন মোবাইল ৪টি জব্দ করা হয়।

কোস্টগার্ডের এই কর্মকর্তা জানান, দ্বীপটি টেকনাফ হতে দূরবর্তী, বিচ্ছিন্ন এবং জনশূণ্য হওয়ায় এই সুযোগটি কাজে লাগিয়ে একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্র দীর্ঘদিন যাবত ডাকাতি, মাদকদ্রব্য ও মানব পাচারসহ বিভিন্ন ধরণের অপকর্ম চালিয়ে আসছিল।