বিশ্ব গবেষকদের তালিকায় কুবির ৫৯ গবেষক

প্রকাশিত: ১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ , জানুয়ারি ৩, ২০২৩

এলপার ডগার (এডি) সায়েন্টিফিক ইনডেক্স র‌্যাংকিং-২০২৩ এ বিশ্বসেরা গবেষকদের তালিকায় স্থান পেয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৯ জন শিক্ষক।যেখানে গত বছর এই র‍্যাংকিংয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছিলেন ২৮ জন।

এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্সের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, বিশ্বের ২১৬ টি দেশের ১৯ হাজার ৫২৫টি প্রতিষ্ঠানের ১২ লাখ ৩৩ হাজার ৫২৩ জন গবেষক এ তালিকায় স্থান পেয়েছেন। আন্তর্জাতিক মানের এই সূচকে ১১ ক্যাটাগরিতে গবেষকদের ভাগ করা হয়েছে।

প্রকাশিত তালিকায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের মধ্যে ১ম এবং বাংলাদেশের গবেষকদের মধ্যে ১,৪৯১ তম স্থানে রয়েছেন একাউন্টিং এন্ড সিস্টেমস বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন। তার মোট সাইটেশন সংখ্যা ৬২৮টি।

তালিকায় স্থান পাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকরা হলেন: আইসিটি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. তোফায়েল হোসেন মজুমদার, অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. স্বপন চন্দ্র মজুমদার, গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. গোলাম মর্তুজা তালুকদার।
এছাড়া আরো আছেন মো. মিজানুর রহমান, পার্থ চক্রবর্তী, জি এম আজমল আলী কাউছার, মাহমুদুল হাসান, মো. খলিলুর রহমান, মো. কামাল হোসাইন, মো. সোলাইমান, এম জাকির ছাদউল্লাহ খান, ফয়েজ আহমেদ, মো. আব্দুল মাজেদ পাটোয়ারী, সাইফুর রহমান, নয়ন বনিক, মো. ওয়ালী উল্লাহ, মো. জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী, এম আমিনুল ইসলাম আকন্দ, মো. মশিউর রহমান, মো. হাসান হাফিজুর রহমান, তারেক হোসাইন, মো. তোফায়েল আহমেদ, শহিদুল ইসলাম, হুমায়ুন কায়সার, কাজী ওমর সিদ্দিকী, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ, নবিন কুন্ডু, মাকছুদুর রহমান, মো. মমিনুর রহমান, আমান মাহবুব রিংকু।

এছাড়া তালিকায় আরও আছেন মাহমুদা খাতুন, এন এম রবিউল আউয়াল চৌধুরী, মো. সাইফুর রহমান, মো. আব্দুল হাকিম, মো. রাকিব হাসান, বিশ্বজিৎ চন্দ্র দেব, জাহাঙ্গীর আলম, সংগীতা বশাক, অদিতি সরকার, মোহাম্মদ রেজাউল করিম, আফরিনা আক্তার মিশু, বুরহান উদ্দিন, মো. শাহেদুর রহমান, মো. কামাল হোসাইন চৌধুরী, মো. ফরহাদ হোসাইন, মো. মাইনুল হাসান, কৃঞ্চ কুমার সাহা, চৌধুরী শাহরিয়ার মোজাম্মেল, সজিব রহমান, নাহিদা আফরোজ, মোহাম্মদ মাহবুব রহমান মানিক, আব্দুল আহাদ, মো. নাজমুল হক, মোহাম্মদ ওমর ফারুক, কানিজ ফাতেমা ও রেজওয়ান আহমেদ মেহেদি।

উল্লেখ্য, এলপার ডগার সায়েন্টিফিক ইনডেক্স গবেষকদের গুগল স্কলার রিসার্চ প্রোফাইল ও বিগত ৫ বছরের গবেষণার এইচ ইনডেক্স, আইটেন ইনডেক্স এবং সাইটেশন স্কোরের ভিত্তিতে র‍্যাঙ্কিংটি প্রকাশ করা হয়েছে।