নোয়াখালীতে রিকশা চালককে কুপিয়ে হত্যা,আটক-২

প্রকাশিত: ৯:২৮ অপরাহ্ণ , ডিসেম্বর ২৮, ২০২২

নোয়াখালী কবিরহাট উপজেলায় মেজবাহ উদ্দিন রাব্বি (২৫) নামের ১ অটোরিকশা চালককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় পুলিশ ২ জনকে সন্দেহ জনক ভাবে আটক করেছে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে কবিরহাট সরকারি কলেজের পশ্চিমে এনায়েত নগর সড়কে রাত সোয়া ৮ টার দিকে।

আটককৃত ব্যক্তিরা হলেন,উপজেলার কবিরহাট পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের এনায়েত নগর গ্রামের হোসেন সর্দার বাড়ির মৃত সফি উল্লার ছেলে রাসেল(৩০)

কবিরহাট পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের ঘোষবাগ এলাকার হাসান আলী মেস্ত্রী বাড়ির আবদুল হকের ছেলে মাঈন উদ্দিন (২৮)।এ ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (২৬ শে ডিসেম্বর)বেলা পৌনে ১২ টার দিকে।

এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকা সন্দেহে ২ জনকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.রফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ঘটনার কয়েক ঘন্টার মধ্যে সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার একাধিক স্থানে অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ঘটনার সোমবার সকালে নিহতের মা তাজনাহার বেগম বিজলী বাদী হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ করে কবিরহাট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। যাহার মামলা নং-৫।

মামলার বিবরনের জানা গেছে,কবিরহাট পৌরসভার এনায়েত নগর এলাকার রাসেল (৩০) তার ভাই রুমেজ (২৯) ও কবিরহাট পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের ঘোষবাগ এলাকার হাসান আলী মেস্ত্রী বাড়ির মো.আবদুল হকের ছেলে মাইন উদ্দিন (২৮) সহ অজ্ঞাত ২-৩জনের সাথে নিহত অটোরিকশা চালক মেজবাহ উদ্দিন রাব্বির (২৮)ভাড়া নিয়ে কথা কাটাকাটি জের ধরে পরে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় রাব্বি অটোরিকশা নিয়ে কবিরহাট বাজারে যাওয়ার পথে এজাহারে নামীয় এই ৩ আসামি সহ অজ্ঞাত নামা ৮-১০জন সন্রাসি জড় হয়ে দেশীয় ধারালো দা, ছুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে এনায়েত নগর এলাকার পুকুর পাড়ের ঝোপে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয় এলাকাবাসীর বলেন,অটোরিকশা চিন্তায় কালে পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের জৈনদপুর গ্রামের সর্দার বাড়ির সফির ছেলে রাসেল ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানা গেছে।

অরপদিকে কবিরহাট থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.রফিকুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে পুলিশ বাদীর অভিযোগ আমলে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত মূল হত্যাকান্ডের কোন রহস্য উদ্ঘাটন করতে পারেনি।