সাংবাদিকের ওপর হামলা, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নিন্দা

প্রকাশিত: ১২:০৪ অপরাহ্ণ , আগস্ট ১৩, ২০২২

ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিক হাসান মিজবাহের ওপর হামলার ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

শনিবার (১৩ আগস্ট) সকালে মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এই নিন্দা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, গত ৯ আগস্ট রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর এলাকার এসপিএ ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কিছু বিষয়ের ওপর পেশাগত প্রতিবেদন করতে গিয়ে হাসান মিজবাহের ওপর হামলা ও শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন ‘হেলথ মিনিস্ট্রি মিডিয়া উইং’ তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, হাসান মিজবাহ মতো এরকম একজন সিনিয়র রিপোর্টারের সঙ্গে এই ধরনের অশালীন আচরণ কোনভাবেই প্রত্যাশিত নয়। ‘হেলথ মিনিস্ট্রি মিডিয়া উইং’ প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করে এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত শাস্তির আওতায় আনার দাবির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করছে এবং তার শারীরিক ও মানসিক অবস্থার সাথে সহমর্মিতা প্রকাশ করছে।

এদিকে হাসান মিজবাহের ওপর হামলার ঘটনায় বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরাম থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। সংগঠনটি, হামলাকারী চিকিৎসকের বিএমডিসির সনদ এবং রেজিস্ট্রেশন বাতিল করতে আল্টিমেটাম দিয়েছে। দাবি না মানলে প্রথমে বিএমডিসি ভবনের সামনে পরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সামনে কর্মসূচি পালন করার ঘোষণা দেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৯ আগস্ট এসপিএ ডায়াগনস্টিক সেন্টারে বিএমডিসি’র সনদ ছাড়াই রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে এমন খবর নিয়ে পেশাগত দাযিত্ব পালন কালে হাসান মিসবাহের ওপর হামলা চালায় ওই হাসপাতালের সংশ্লিষ্টরা। এ সময় তার ক্যামেরাম্যান ও গাড়ি চালককে মারধর করে ক্যামেরা ও গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। বর্তমানে হাসান মেসবা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।