রামগড়ে সরকারি উপজেলা পরিষদের জমিতে বেড়া নির্মানকালে ২ জনকে আটক

বাহার উদ্দিন বাহার উদ্দিন

রামগড় প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১:১৭ অপরাহ্ণ , আগস্ট ১, ২০২২

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা আদেশ উপেক্ষা করে সরকারি ভুমি দখলের উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে কাঁটা তারের বেড়া নির্মাণ কালে দুই ব্যক্তিকে আটক করে পাঁচ দিনের জেল দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।
সোমবার (১ জুলাই) দুপুরে রামগড় অফিস টিলার প্রাচীন এসডিও বাংলোর সামনের সরকারি জমি রক্ষায় ভ্রাম্যমাণ পরিচালনা করেন রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মো. ইখতিয়ার উদ্দীন আরাফাত।এসময় অফিস টিলার আবদুল মালেকের ছেলে আবুল কালাম(৬৫)দারোগা পাড়ার আলী আকবরের ছেলে রুহুল আমীন (৪০) নামে দুই শ্রমিকের প্রত্যেককে ৫ দিন করে জেল দেয় মোবাইল কোর্ট।মোবাইল কোর্টের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মো. ইখতিয়ার উদ্দীন আরাফাত জানান,গতবছরের ২৮ নভেম্বর জননিরাপত্তা বিভাগের দেওয়া আদেশ অমান্য করে রামগড় উপজেলা পরিষদের জায়গার উপর অবস্থিত ১৯২০ সালে প্রতিষ্ঠিত রামগড় মহকুমা প্রশাসকের বাংলোর সামনে কাটা তারের বেড়ার কাজ করার সময় দুই ব্যাক্তিকে আটক করে সরকারী ও স্থানীয় কর্তৃপক্ষের ভূমি ও ইমারত (দখল পূনরুদ্ধার) আদেশ ১৯৭০ এর ৭ ধারায় ০৫ (পাঁচ) দিন করে জেল প্রদান করা হয়েছে।তিনি জানান,ইতোপূর্বে বিজিবি’র রামগড় ব্যটালিয়ন এই জায়গায় অবৈধভাবে কাটাতারের বেড়া স্থাপন করলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ এর স্মারক নং- ৪৪.১০.০০০০.১১৬.২৪ .০২২.১৯ (অংশ-২)-১৯২, তারিখ ২৮/১১/২০২২ মূলে অবৈধভাবে দখলকৃত জমির বিষয়ে বিদ্যমান আইন ও বিধিমালার আলোকে সরকারি স্বার্থ সংরক্ষণের নিমিত্তে পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসক খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উক্ত জমি হতে অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নিতে বারবার বিজিবিকে অনুরোধ পত্র দিয়েও বিজিবির পক্ষ থেকে কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)আরোও জানান,ভূমিটি খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ের নাকাপা মৌজার ২৩৫ খতিয়ানে রামগড় উপজেলার পরিষদের নামে রেকর্ডীয় আছে।এতে উপজেলা মডেল মসজিদ নির্মাণ ও সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের প্রয়োজনীয় ভবন নির্মাণ করার প্রস্তাবনাও রয়েছে।