এখন আর কেউ ছেঁড়া জুতা-কাপড় পরে না

প্রকাশিত: ৩:৩৬ অপরাহ্ণ , জুলাই ২২, ২০২২
ফাইল ছবি

এখন দেশে আর কেউ ছেঁড়া কাপড় ও ছেঁড়া জুতা পরে না বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।তিনি বলেন, যারা গ্রামে যান তারা দেখেছেন গ্রামে প্রতি এক হাজার থেকে আড়াই হাজার মানুষ নানাভাবে সহায়তা পান। এখন দেশে আর কেউ ছেড়া কাপড় ও জুতা পরে না। এটা বাস্তবতা।

শুক্রবার (২২ জুলাই) সকালে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে জেলা প্রশাসক আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

এ ছাড়া বর্তমান সরকার দেশকে সামাজিক কল্যাণ রাষ্ট্রে পরিণত করার লক্ষ্যে কাজ করছে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সামাজিক সুরক্ষা খাতে প্রতিনিয়ত বরাদ্দ বাড়ানো হচ্ছে। যা উন্নয়নশীল দেশের জন্য উদাহরণ।

বিএনপিকে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িকতার প্রধান পৃষ্ঠপোষক উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশ থেকে সাম্প্রদায়িকতা বিনাশ করতে হলে এ শক্তিকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে যারা রাজনীতি করে তাদের চিরতরে বর্জন করতে হবে। বিএনপির প্রধান সহযোগী জামায়াতে ইসলাম এক সময় এ দেশের স্বাধীনতা চায়নি। এমনকি বিএনপি নেতৃত্বাধীন বৃহত্তম জোটে এমন অনেক দল আছে যাদের নেতারা আফগানিস্তানে গিয়েছিল।

দেশ সাম্প্রদায়িক হলে তা কখনো সামনের দিকে এগোতে পারে না উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান শুধু সাম্প্রদায়িকতার কারণে আজ এগোতে পারছে না। এটা আমাদের জন্য একটা শিক্ষা। যারা সাম্প্রদায়িক রাজনীতি করে তাদের চিহ্নিত করে বর্জনের আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে ১৪ যুব সংগঠনসহ বাঁশখালীতে দুষ্কৃতকারীদের অগ্নিসংযোগে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ এবং সীতাকুণ্ডের বিএম কনটেইনারে অগ্নিদুর্ঘটনায় হতাহত ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ করেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।