সীতাকুণ্ডের কন্টেইনার ডিপোতে দগ্ধ দুইজনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ৫:৪৬ অপরাহ্ণ , জুন ১২, ২০২২

সীতাকুণ্ডের বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। একজন চট্টগ্রামে অন্যজন ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে।

রোববার (১২ জুন) দুপুরে চট্টগ্রামের বেসরকারি একটি হাসপাতালে ডিপো কর্মী নুরুল কাদেরের (২২) মৃত্যু হয়। অন্যজন ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফায়ার ফাইটার গাউসুল আজমের ভোর ৩টার দিকে মৃত্যু হয়।

নুরুল কাদেরের বিষয়ে চট্টগ্রাম পার্কভিউ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. এ টি এম রেজাউল করিম বলেন, দুর্ঘটনার পর দগ্ধ নুরুল প্রথমে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। পরে সেখান থেকে তাকে এ হাসপাতালের আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই রোববার দুপুর দেড়টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা শাহজাদী সুলতানা বলেন, এ নিয়ে ফায়ার সার্ভিসের মোট ১০ সদস্যের মৃত্যু হলো। ডিপো থেকে উদ্ধার করা যেসব পোড়া লাশ শনাক্ত করা যায়নি, তাদের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের আরও তিনজন রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত ৪ জুন রাতে সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের কেশবপুর গ্রামে বেসরকারি কন্টেইনার ডিপোতে আগুন লাগার পর একের পর এক বিস্ফোরণে তা ছড়িয়ে পড়ে। ডিপোতে থাকা রাসায়নিকের কারণে ছড়িয়ে পড়া ওই আগুন ৮৬ ঘণ্টা পর বিভিন্ন বাহিনীর চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসে। ভয়াবহ ওই অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের ঘটনায় ৪৪ জনের মৃত্যু হয়।