মাইনাস ফর্মুলা নস্যাৎ করে দেশে ফেরেন শেখ হাসিনা

প্রকাশিত: ৩:৩৯ অপরাহ্ণ , মে ৭, ২০২২

দেশের গণতন্ত্রের ইতিহাসে অনন্য এক দিন ৭ মে। সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের গ্রেপ্তারের হুমকি উপেক্ষা করে ২০০৭ সালের এই দিনে যুক্তরাজ্য থেকে দেশে ফেরেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। সরকারের মাইনাস ফর্মুলা নস্যাৎ হয়। গণতন্ত্রের নবযাত্রায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই উন্নয়নের মহীসোপানে ওঠে বাংলাদেশ।

বিএনপি-জামায়াতের অপশাসনের পর ইয়াজউদ্দিন অধ্যায় শেষে ক্ষমতার মসনদে ফখরুদ্দিনের তত্ত্বাবধায়ক সরকার। রাজনীতি সংস্কারের নামে গণতন্ত্রের ওপর আঘাত।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে রাজনীতি থেকে মাইনাস করার ষড়যন্ত্র।

২০০৭ সালে চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার পর বঙ্গবন্ধু কন্যা যাতে দেশে ফিরতে না পারেন সেজন্য আটঘাট বেধে নামে সরকার।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, “তারা চিন্তা করতো যে, বঙ্গবন্ধু কন্যা যদি এদেশের রাজনীতির নিয়ন্ত্রক হন বা রাজনীতিতে থাকেন তাহলে তারা যে পেছন দরজা দিয়ে অন্ধকার গলির পথে ক্ষমতা ভাগাভাগি করতে চায় সেটা সম্ভব নয়।”

দেশের মানুষের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য বিদেশে বসেই জনমত গঠন করেন শেখ হাসিনা। যুক্তরাষ্ট্র থেকে যুক্তরাজ্য হয়ে ৭ মে বাংলার মানুষের কাছেই ফিরে আসেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

আব্দুর রহমান বলেন, “সাহসিকতা বলেন, সততা বলেন এবং তার যে প্রতিবাদী চরিত্র- সবকিছু মিলেই সেদিন জাতির কাছে প্রমাণ করেছিলেন সত্যিকার অর্থে তিনি বাঙালি জাতির নেতা।”

ওই বছরের ১৬ জুলাই সাজানো মামলায় গ্রেফতার হন তিনি। গণতন্ত্র ফেরানোর সংগ্রামে রাজপথে নামে বাংলার মানুষ। গণতন্ত্রের নবযাত্রায় ২০০৮ সালের নবম সংসদীয় নির্বাচন।

সেই থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে দুর্বার গতিতে ছুটে চলছে বাংলাদেশ।